শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২৩ অপরাহ্ন

স্বামীর টাকা-স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর অভিযোগ তরুণীর বিরুদ্ধে

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম: বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ২০৭ বার পঠিত

ব্যবসায়ী স্বামী আল আমিন মৃধার টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রেমিক অলিউল্লাহ গাজীর হাত ধরে স্ত্রী রুমা আক্তার পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা হয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার স্বামী মো. আল আমিন মৃধা আমতলী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন। এ ঘটনা ঘটেছে আমতলী উপজেলার চাওড়া পাতাকাটা গ্রামে।

জানা গেছে, ২০১৫ সালে আমতলী উপজেলার চাওড়া পাতাকাটা গ্রামের আব্দুল খালেক মৃধার প্রবাসী ছেলে আল আমিন মৃধার সঙ্গে তালতলী উপজেলার পঁচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের চান্দখালী গ্রামের রিপন মৃধার কন্যা রুমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পরপরই স্বামী আল আমিন মৃধা দুবাই চলে যান। স্বামীর অবর্তমানে স্ত্রী রুমা আক্তার আমতলী পৌর শহরের সিলভার ব্যবসায়ী আউয়াল গাজীর ছেলে অলিউল্লাহ গাজীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন।

এ ঘটনা আত্মীয়স্বজনের মধ্যে জানাজানি হয়। স্ত্রীকে অনৈতিক পথ থেকে নিবৃত্ত করতে বেশ কয়েকবার সালিশ বৈঠক হয়। কিন্তু স্ত্রী রুমা তার অনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে ফিরে আসেননি। ২০১৮ সালে আল আমিন মৃধা দেশে ফিরে আসেন। দেশে এসে ব্যবসা শুরু করেন। গত রোববার স্ত্রী রুমা আক্তার স্বামীর ঘর থেকে নগদ দুই লাখ ২০ হাজার টাকা ও আট ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রেমিক অলিউল্লার হাত ধরে পালিয়ে গেছেন।

এ বিষয়ে স্ত্রী রুমা আক্তার মোবাইল ফোনে টাকা ও স্বর্ণালংকার নেওয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, আল আমিন নামে আমি কাউকে চিনি না। আমার সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই।

রুমার বাবা রিপন মৃধা বলেন, আল আমিন আমার মেয়ের স্বামী। এখন শুনতে পাচ্ছি মেয়ে জামাতাকে তালাক দিয়েছে।

মেয়ে কোথায় আছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মেয়ের খবর আমি জানি না।

আমতলী উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তদন্তকারী অফিসার রুপকুমার পাল বলেন, আদালতের নথিপত্র পেয়েছি। দ্রুত তদন্ত শেষে প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

  • Print
  • উত্তরা নিউজ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন:
এ জাতীয় আরো খবর..
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩-২০২৩
themesba-lates1749691102