Koria

উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া বিগত দুই বছরেরও বেশি সময় পর মঙ্গলবার এই প্রথমবারের মতো আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু করেছে। পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু কর্মসূচি প্রশ্নে মাসের পর মাস ধরে উত্তেজনা চলার পর আসন্ন শীতকালীন অলিম্পিক গেমস উপলক্ষে তারা এ আলোচনায় বসে।

দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় গেমসে উত্তর কোরিয়া প্রতিনিধি দল পাঠাতে পারে নতুন বছরের ভাষণে দেশটির নেতা কিম জং উন এমন ইঙ্গিত দেওয়ার পর পানমুনজমে এ আলোচনা শুরু করা হলো। পানমুনজম হচ্ছে এ উপদ্বীপকে বিভক্ত করা ডিমিলিটারাইজড জোনে (ডিএমজেড) অস্ত্রবিরতি পালন করা একটি গ্রাম।

বহুল প্রত্যাশিত এ আলোচনার জন্য সিউলের পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল গাড়ি বহরে করে পানমুনজমে পৌঁছান। এ সময় শুভাকাক্সক্ষী গ্রুপের সদস্যরা ডিএমজেড অভিমুখী একটি ফাঁড়িতে ব্যানার উত্তোলন করে তাদের অভিনন্দন জানায়।

প্রতিনিধি দলের নেতা একত্রিকরণ বিষয়ক মন্ত্রী চো মিউং-গিউন সিউল ত্যাগের আগে বলেন, আলোচনায় উভয় পক্ষ পিয়ংচং গেমসে উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণের বিষয়টির ওপর জোর দেবে। এ ছাড়াও আলোচ্য সূচিতে দুই কোরিয়ার মধ্যকার বিরূপ সম্পর্কের বরফ গলানোর উপায় খুঁজে বের করার বিষয় অন্তর্ভূক্ত থাকবে।

তিনি আরো বলেন, একটি শান্তি উৎসব হিসেবে পিয়ংচং অলিম্পিক ও প্যারালিম্পিক গেমস যাতে অনুষ্ঠিত হতে পারে সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা চালাবো। 

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, এ বৈঠক উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে সম্পর্কোন্ননের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে কাজ করবে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা