jarin picture

উত্তরা সংলগ্ন তুরাগের চন্ডাল ভোগ গ্রামে নির্মানাধীন ভবনের নিচতলার পানির সেফটি ট্যাংকের ভেতরে পড়ে জেরিন নামে ৬ বছরের এক শিশুর করুণ মৃত্যু হয়েছে। নিহত জেরিণ শরিয়তপুর জেলার পালং থানার তেতুঁলিয়া ইউনিয়নের সিরাকান্দি গ্রামের মো: জিয়াউর রহমানের কন্যা।Displaying picture-02323.jpg


বুধবার বেলা ১১টার দিকে তুরাগের হরিরামপুর ইউনিয়ন ৫ নম্বর ওয়ার্ড চন্ডাল ভোগ গ্রামের সিরাজ মিয়ার বাড়িতে এঘটনা ঘটে। তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন বুধবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।



নিহত শিশু জেরিনের মাতা সোনিয়া আক্তার ও তার মামা মো: জসীম জানান, বুধবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে ৬ বছরের শিশু জেরিন প্রতি দিনের মতো খেলা করার জন্য তার সহপাঠিদের সাথে চন্ডাল ভোগ গ্রামের সিরাজ মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসা থেকে বের হয়ে পার্শ্ববর্তী নিজাম উদ্দিন (আব্দুস সালামদের) বহুতল নির্মানার্ধীন বাড়িতে যায়। বাড়ির নিচতলায় খেলা করার এক পর্যায়ে হঠাৎ করে জেরিন তার পা পিছলে ওই ভবনে টিন দিয়ে ডাকা পানির সেফটি ট্যাংকের ভেতরে পড়ে তলিয়ে যায়। প্রায় ১ ঘন্টা জেরিনের পরিবারের লোকজন তার কোন সন্ধ্যান পা পেয়ে তখন তাকে খুঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা ওই ভবনে গেলে জেরিনকে তারা ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায় পায়। পরে তাকে তার পরিবারের সদস্যরা অচেতন অবস্থায় উদ্বার করে উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।
এদিকে, বুধবার পৌনে ১টার দিকে ঢাকা মেট্রো-ছা-৭১-১৯০৫ নম্বরের একটি অ্যাম্বোলেন্সে করে তার পরিবারের সদস্যরা তুরাগ থানা পুলিশকে ঘটনাটি না জানিয়ে নিহত শিশু জেরিনের লাশ তাদের গ্রামের বাড়ি শরিয়তপুরে নিয়ে যায়। এঘটনার পর চন্ডাল ভোগ গ্রামের নিজাম উদ্দিন (আব্দুস সালামদের) বহুতল নির্মানার্ধীন বাড়ির টিনের ভেড়া, দোকান ও বাড়ির গেইটি মালিকপক্ষ বন্ধ করে দিয়ে কৌশলে পালিয়ে গেছে। জেরিনের লাশ নিয়ে যাবার সময় চন্ডাল ভোগ গ্রামের সিরাজ মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় কয়েকশত নারী,শিশু, উৎসুক জনতা এবং এলাকাবাসিরা প্রচন্ড ভিড় করে।
এবিষয়ে তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন বুধবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,খবর পেয়ে তুরাগ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / এস,এম,মনির হোসেন জীবন

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা