arrest

ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জসিম উদ্দীন নামে এক যাত্রীর পায়ুপথের ভেতর থেকে ৬০টি ছোট প্যাকেটের ভেতর থেকে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ এক যাত্রীকে আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। আটককৃত মাদকের বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ২৭ লাখ টাকা।

রোববার রাতে বিমানবন্দরের ডোমেস্টিক আগমনী এলাকায় এঘটনা ঘটে। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মো. সহিদুল ইসলাম আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানায়, রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চট্টগ্রাম থেকে (ভিকিউ-৯১২) নম্বরের একটি বিমান ঢাকায় এসে অবতরণ করে। তখন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বিমানবন্দরের ডোমেস্টিক আগমনী এলাকায় অবস্থান নেয় শুল্ক গোয়েন্দা টিমের সদস্যরা। যাত্রী জসিম উদ্দিন বিমানবন্দরে নেমে ডোমেস্টিক এলাকা অতিক্রম করার সময় তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। কিন্তু যাত্রী ইয়াবা বহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে জিঞ্জাসাবাদের এক পর্যায়ে সে জানায় যে তার পেটের ভেতরে ইয়াবা আছে বলে স্বীকার করে। পরে শুল্ক গোয়েন্দাসহ বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে টয়লেটের অভ্যন্তরে বিশেষ কায়দায় পায়ুপথ দিয়ে একে একে ৬০টি ছোট প্যাকেট বের করে আনেন যাত্রী। রোববার দিবাগত রাত ৮টার দিকে ধৃত যাত্রী জসিম উদ্দীনকে ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নিকট হস্তান্তর করা হয়। জব্দকৃত ইয়াবার বাজারমূল্য প্রায় ২৭ লাখ টাকা। আটককৃত পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইন ১৯৬৯ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৯০ অনুযায়ী আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / এস,এম,মনির হোসেন জীবন

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা