i phone

আইফোন ৮ এবং আইফোন এক্স হলো অ্যাপলের সেই স্মার্টফোন যেগুলোতে দ্রুতগতির চার্জিং প্রযুক্তি যোগ হয়েছে। যদিও অ্যাপল এগুলোতে আরো অনেক ধরনের নতুন ফিচার এনেছে।

আইফোন ৮ এবং এক্স বাজারে আসার পর অনেকের মতে এগুলোই সেরা ফোন সবদিক থেকে। কিন্তু আসলেই কি তাই? ওয়ানপ্লাস ৫টি কিন্তু একটা দিকে হারিয়ে দিয়েছে আইফোনকে। এখানে দ্রুতগতির চার্জিং প্রযুক্তির কথাই বলা হচ্ছে।  

 টমস গাইড আইফোনের বিভিন্ন ফিচারের তুলনা করতে গবেষণা চালায়। তাতে দেখা গেছে, বিশেষ করে দ্রুত চার্জ নেওয়ার ক্ষেত্রে আইফোনের নতুন মডেলগুলোও কিন্তু অ্যাড্রয়েডের সঙ্গে পেরে ওঠেনি। ওয়ানপ্লাস ৫টি, এলজি ভি৩০, গুগল পিক্সেল ২ এবং গ্যালাক্সি নোট৮ এর সঙ্গে আইফো এক্স এবং ৮ এর তুলনামূলক গবেষণা চালানো হয়। মূলত ইউএসবি সি-টাইপ পোর্টের মাধ্যমে দ্রুতগতিতে চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। অ্যাপলের এ সুবিধা পেতে ফাস্ট চার্জিং অ্যাডাপ্টারের জন্যে অবশ্য বাড়তি ৬৮ ডলার গুনতে হয়।  

যন্ত্রগুলো আধা ঘণ্টার পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়।

পরে আবারো এক ঘণ্টার পরীক্ষা। টমস গাইডের পরীক্ষায় স্পষ্টভাবে প্রমাণ মিলেছে যে, ওয়ানপ্লাস ৫টি সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে। মাত্র ৩০ মিনিটের মাথায় এর ৫৯ শতাংশ ব্যাটারি চার্জ হয়ে যায়। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল এলজি ভি৩০। তৃতীয় হয়েছে আইফোন এক্স এবং আইফোন ৮।   একঘণ্টার মধ্যে ওয়ানপ্লাস ৫টি ৯৩ শতাংশ চার্জ শেষ করে ফেলে। কিন্তু এ সময় আইফোন এক্স ৮১ শতাংশ চার্জ নেয়। আর আইফোন ৮ নেয় ৮০ শতাংশ চার্জ।  

এখানে উল্লেখ্য যে, কোয়ালকমের কুইকচার্জ প্রযুক্তি ছাড়াই ওয়ানপ্লাস ৫টি এই দারুণ কাজটি করতে সফল হয়েছে। কাজেই এই প্রযুক্তিতে আইফোন এক্স-কে ছাড়িয়ে গেছে ওয়ানপ্লাস ৫টি।  
সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা