bangladesh-vs-windes

মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষেই চালকের আসনে বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রান করে বাংলাদেশ। বিপরীতে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ৭৫ রান করে দিন শেষ করে ক্যারিবীয়রা। বল হাতে ঘূর্ণি জাদু দেখিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ। দুজনে জায়গা করে নিয়েছেন ইতিহাসেও।

 

মাত্র ২৯ রানে ক্যারিবীয়দের ৫ উইকেটে তুলে নেয় টাইগাররা। সাকিব আল হাসান ও মেহেদী হাসান মিরাজ মিলে নেন এই পাঁচ উইকেট। মিরাজ তিনটি ও সাকিব নেন ২ উইকেট। মজার ব্যাপার ক্যারিবীয়দের পাঁচ ব্যাটসম্যানই হয়েছেন বোল্ড আউট।

আর তাতেই দারুণ একটা কীর্তি লেখা হয়ে গেছে বাংলাদেশের পক্ষে। নির্দিষ্ট করে বললে সাকিব ও মিরাজের হাত ধরে লেখা হলো কীর্তিটি। ১২৮ বছর আগে ঘটে যাওয়া কীর্তি ফের করে দেখালেন সাকিব ও মিরাজ।

টেস্ট ক্রিকেটে প্রতিপক্ষের প্রথম ৫ উইকেট বোল্ড আউটের মাধ্যমে তুলে নিয়েছে কোনো দলের বোলাররা, এমন ঘটনা সর্বশেষ ও দ্বিতীয়বারের মতো ঘটেছিল ১৮৯০ সালে। প্রথমবার ঘটে ১৮৭৯ সালে।

অর্থাৎ ১২০ বছর পর এই কীর্তি গড়ে তালিকায় তৃতীয় দল হিসেবে নাম লিখাল বাংলাদেশ।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস, সাকিব আল হাসান, সাদমান ইসলাম ও লিটন দাসের ব্যাটে ভর করে প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রান করে বাংলাদেশ। স্কোরবোর্ডে মজবুত একটা পুঁজি দাঁড় করিয়ে স্পিনারদের দাপট দেখানোর মঞ্চ তৈরি করেছিলেন টাইগার ব্যাটসম্যানরা।

সেই মঞ্চে স্পিনাররা রীতিমত ঘূর্ণি জাদু দেখালেন। যে ঘূর্ণি জাদুতে পরাস্থ ক্যারিবীয়দের শীর্ষ ৫ ব্যাটসম্যান। মাত্র ২৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ৭৫ রান করে দিন শেষ করে ক্যারিবীয়রা। তবে দ্বিতীয় দিন শেষেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিজেদের হাতে নিয়ে নিয়েছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম টেস্টের মতো এম্যাচেও চার স্পিনার নিয়ে খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ১৮ ওভার করলেন সাকিব-মিরাজ। এই জুটির প্রথম স্পেলেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংস শুরুর আগেই ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়। প্রথম ওভারেই উইকেট তুলে নেন সাকিব। অন্যপ্রান্তে মিরাজ যেন সাকিবের সঙ্গে উইকেট নেওয়ার প্রতিযোগীতা শুরু করলেন।

যে প্রতিযোগীতায় মিরাজ থাকলেন এগিয়ে। ২৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মিরাজ নিলেন তিনটি, সাকিব দুটি। বিস্ময়কর হলেও ক্যারিবীয় পাঁচ ব্যাটসম্যানই ফিরলেন বোল্ড আউট হয়ে।

রোস্টন চেজ একমাত্র দুই অঙ্ক স্পর্শ করেছিলেন। ১০ রান করে মিরাজের বলে বোল্ড হন। ক্যারিবীয়দের পঞ্চম ব্যাটসম্যান হিসেবে সাঁজঘরে ফিরেন তিনি।

এরআগে সাকিবের প্রথম ওভারের শেষ বরে অধিনায়ক ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ফিরেন শূন্য রানে বোল্ড হয়ে। দলীয় ষষ্ঠ ওভারে ৪ রান করা কিয়েরন পাওয়েলকে বোল্ড করেন মিরাজ। এরপর ৭ রান করা সুনিল আমব্রিসকে বোল্ড করেন সাকিব। ১৭ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩ রানের ব্যবধানে রোস্টন চেজকে তুলে নেন মিরাজ। চেজ শূন্য রানে ফিরেন।

শিমরন হেটমায়ার ও শন ডারউইচ জুটি অবশ্য শেষ বিকেলটা অবিচ্ছিন্ন থেকে কাটিয়ে দেন। ষষ্ঠ উইকেটে ৪৬ রান যোগ করেছেন এই দুজন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / এ/বি

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা