malinga_uttaranews

এবার অভিযোগ উঠেছে শ্রীলংকার পেসার লাসিথ মালিঙ্কার বিরুদ্ধে। নিজের পরিচয় গোপন করে ভারতীয় এক নারী বর্ণনা দিয়েছেন শ্রীলংকার এক ক্রিকেটারের কাছে হেনস্তা হওয়ার ঘটনা। 

আর তাকে নিজের পরিচয় গোপন রেখে বার্তা দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন ভারতীয় প্লেব্যাক গায়িকা চিন্ময়ী শ্রীপদ। সামাজিক হেনস্তার ভয়ে যারা নিজেদের ঘটনা সামনে আনতে পারছেন না তাদেরক টুইটারে মেসেজ হিসেবে পাঠিয়ে দেওয়ার সুযোগ দিয়েছেন চিন্ময়ী। এরপর তিনি তা নিজের টুইটারে প্রকাশ করছেন। এমন এক টুইট এসেছে শ্রীলংকার এক ক্রিকেটারের নামে। চিন্ময়ী হিসেব মিলিয়ে সেই ক্রিকেটার লাসিথ মালিঙ্গা বলে বের করেছেন। অবশ্য অভিযুক্ত সেই লংকান ক্রিকেটার যে মালিঙ্গা কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।  

ছবি: নিউজ নেশন

টুইটের বার্তা অনুযায়ী, 'আমি তার নাম নিতে চাচ্ছি না। কয়েক বছর আগের ঘটনা, তখন আমি মুম্বাইয়ে ছিলাম। আমরা যে হোটেলে ছিলাম, সেখানেই আমার এক বান্ধবীকে খুঁজছিলাম। এমন সময় খুবই বিখ্যাত এক লংকান ক্রিকেটারের সঙ্গে দেখা হলো। তখন আইপিএল চলছিল। তিনি বললেন, আমার বান্ধবী নাকি তার রুমেই আছে। আমি তার রুমে গেলাম, কিন্তু গিয়েই দেখলাম সেখানে আমার বান্ধবী নেই।' 

এরপরের ঘটনার বর্ণনায় লেখা হয়েছে, 'সেই ক্রিকেটার এরপর আমাকে ধাক্কা দিয়ে বিছানায় ফেলে দেয়। আমার মুখের ওপর চড়ে বসে সে। বলে রাখি, আমি বেশ লম্বা এবং তেমনি একটু স্থূলকায়। ফলে তার সঙ্গে গায়ের জোরে পেরে উঠছিলাম না। এরপর আমি ভয়ে মুখ-চোখ বন্ধ করে ফেলি। তখন সে আমার গাল ব্যবহার করে। ঠিক সেই সময় হোটেলের কর্মচারী কিছু জিনিস দিতে দরজায় নক করে। ক্রিকেটার দরজা খুলতে গেলে আমি দ্রুত ওয়াশ রুমে চলে যায়। এরপর হোটেল কর্মচারীর সঙ্গে সঙ্গে বের হয়ে যাই।'

সেই পরিস্থিতির কথা জানিয়ে বার্তা প্রেরণকারী লেখেন, 'আমি ভয়ংকর অপমানিত বোধ করছিলাম। আমি জানি অনেকে বলবে, আমি আগে থেকে জেনেই তার রুমে গিয়েছি। সে বিখ্যাত বলেই আমি গিয়েছি এমনও বলবে। অনেকে বলবে এর চেয়েও ভয়ংকর কিছু হওয়া উচিত ছিল।' অবশ্য অভিযোগকারী মালিঙ্গার নাম উল্লেখ করে বলেননি। কিন্তু ক'বছর আগে মুম্বাইয়ে খেলা আইপিএলের লংকান বিখ্যাত ক্রিকেটার মানেই মালিঙ্গ। এটা ধরেই চিন্ময়ী মালিঙ্গার নাম বলেছেন। যদিও সেই ক্রিকেটার মুম্বাইয়ে খেলে সেটা নিশ্চিত করে বলা হয়নি। আইপিএলের সময় অবশ্য অন্য লংকান ক্রিকেটারও মুম্বাই থাকতে পারেন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জি/তা

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা