lagos-hijab

নাইজেরিয়ার লাগোস প্রদেশে সরকারি স্কুলের ছাত্রীদের হিজাব পরার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে দেশটির সুপ্রিমকোর্ট। বিচারকরা বলেছেন, মাথায় ছোট ওড়না পরা বা হিজাবে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ায় মুসলিম নারীদের ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত হানা হয়েছে। স্কুলের ইউনিফর্ম না হওয়ায় গত বছরের জুন মাসে ছাত্রীদের হিজাব পরা নিষিদ্ধ করে দেশটির হাইকোর্ট। সূত্র- আলজাজিরা।

এদিকে আদালতের এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছে দেশটির মুসলিম নেতারা। দি মুসলিম রাইটস কনসার্ন (এমআরসি) বলেন, ‘আমরা আপিল বিভাগের রায়কে স্বাগত জানাচ্ছি। এর ফলে আইনের শাসনের জয় হয়েছে।’  

নাইজেরিয়ান সুপ্রিম কাউন্সিলের সাধারণ সভাপতি আলহাজি আবুবকর সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছে। তিনি বলেন, ‘মুসলমানদের হিজাব পরতে কেউ বাধ্য করতে পারবে না। কিন্তু তারা যদি হিজাব পরে তাহলে কেউ তাতে বাধা দিতে পারবে না।’

এদিকে এই রায়ের বিরুদ্ধে সরকার পক্ষ চ্যালেঞ্জ করবে কিনা সে বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি সরকারি প্রসিকিউটর। উল্লেখ্য হিজাব নিষিদ্ধ করার পর থেকে দেশটিতে ধর্মীয় উত্তেজনা বেড়ে যায়।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা