k-m

অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে নারীদের অধিক হারে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে কর্মজীবী নারীদের জন্যে তৈরি হচ্ছে ‘নীলক্ষেত কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল-২’। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় রাজধানীর নীলক্ষেতে এই হোস্টেল নির্মাণ করতে যাচ্ছে। ১০ তলা এ হোস্টেল ভবন নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ২৫ কোটি ৬২ লক্ষ টাকা। এ হোস্টেলটি নির্মাণের ফলে কর্মজীবী নারীদের ক্রমবর্ধমান আবাসন চাহিদা মেটাতে ভূমিকা রাখবে।


বৃহস্পতিবার বিকালে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ‘নীলক্ষেত কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল-২’ এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনকালে এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা শারমীন বেনু, অতিরিক্ত সচিব আইনুল কবির, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী রওশন আক্তার প্রমুখ।


জানা যায়, হোস্টেলটিতে থাকবে অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা। এ সকল সুবিধার মধ্যে রয়েছে- কনফারেন্স রুম, হোস্টেল সুপারের জন্য ডু-প্লেক্স বাসভবন, নামাজের রুম, লাইব্রেরি, নিউজ রুম, লন্ড্রি, ইন্ডোর গেমস রুম, কিচেন, ওয়াই ফাই সুবিধা। উদ্বোধনের সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, একটা ছেলে যেমন একা বাসা ভাড়া করে থাকতে পারে, কিন্তু আমাদের সমাজে একজন মেয়ের পক্ষে একা বাসা ভাড়া করে থাকা সম্ভব হয়ে ওঠে না। কারণ আমাদের সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি মেয়েদের প্রতি নেতিবাচক। তাই তাদের নিরাপত্তার নিশ্চিত করার বিষয়টি মাথায় রেখেই সরকার ক্রমান্বয়ে নতুন নতুন হোস্টেল নির্মাণ করছে।


নাছিমা বেগম বলেন, কর্মজীবী নারীদের ক্রমবর্ধমান চাহিদার কারণে ঢাকা শহরের সকল হোস্টেলগুলোর আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে, উর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ করা হচ্ছে। ঢাকা শহরের বাহিরে বিভাগীয় ও জেলা শহরের হোস্টেল নির্মাণের পরিকল্পনা করছে সরকার।


অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা শারমিন বেনু বলেন, নারীরা সবসময় পরিবারের অন্য সদস্যদের কথা চিন্তা করে। নিজের দিকে খেয়াল রাখতে পারে না। তাকে প্রথমে নিজের প্রতি এবং নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। একজন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী নারী কর্মক্ষেত্রে নিজের সাফল্য সহজেই তুলে ধরতে পারেন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জি/তা-রবি

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা