বদরুলের শাস্তি

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে (২৩) কুপিয়ে জখমের ঘটনায় অভিযুক্ত বদরুল আলমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এক কাতারে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীরা।

বুধবার দুপুরে উপজেলার টুকেরবাজার তেমুখীতে ‘সদর উপজেলার সচেতন নাগরিকবৃন্দের’ ব্যানারে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে বেলা ১১টায় সরকারি মহিলা কলেজ এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন খাদিজার সহপাঠীরা। তারা এই পৈশাচিক হামলার সঙ্গে জড়িত বদরুলের ফাঁসি দাবি করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ছাত্র নামধারী বখাটে নরপশু বদরুল আলমকে দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দিতে হবে। দৃষ্ঠান্তমূলক শাস্তি দিলে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে অন্য কেউ দ্বিতীয়বার ভাববে। কিন্তু তার শাস্তি কঠিন নিশ্চিত না হলে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটবে।

মানববন্ধনে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমেদ কামরান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, টুকেরবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শহীদ আহমদসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার বিকেলে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিতে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রির (পাস) ছাত্রী খাদিজা। পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে আসার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম (২৭)।

বর্তমানে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে খাদিজা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অপারেশনের পর চিকিৎসকরা তাকে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। এ ঘটনায় বদরুলকে একমাত্র আসামি করে শাহপরান থানায় খাদিজার চাচা আব্দুল কুদ্দুস বাদী হয়ে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / গোলাম সারোয়ার

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা