bus accident-dead 1

রাজধানীতে চিকিৎসা করাতে এসে বাসচাপায় সেলিম মিয়া (২২) নামে এক যুবক ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন। একই ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম জুয়েল (৩০)।
সোমবার (২২ অক্টোবর) বেলা ১টার দিকে যাত্রাবাড়ী মোড়ে রাস্তা পার হওয়ার সময় তারা দুটি বাসের চাপায় পড়েন। ট্রান্সসিলভা পরিবহনের দুটি বাস একটি অপরটিকে ওভারটেক করতে প্রতিযোগিতা করছিল।
সেলিমের গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর শিবচরের আলেপুর গ্রামে। তার বাবার নাম ফজল হক। তিনি মা-বাবার একমাত্র সন্তান। মায়ের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় এসে ডেমরায় এক স্বজনের বাসায় উঠেছিলেন। বাসচাপার সময় মা মনোয়ারা বেগম তার সঙ্গে ছিলেন।
তাৎক্ষণিকভাবে জুয়েলের পরিচয় পাওয়া যায়নি।
যাত্রাবাড়ীর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী ঘটনার সতত্য নিশ্চিত করে জানান, দুর্ঘটনার পর পরই ট্রান্সসিলভা পরিবহনের বাস দুটিকে জব্দ ও একচালককে (লাইসেন্সবিহীন) আটক করা হয়েছে।

 

বাসচাপায় আহত সেলিম ও জুয়েলকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বেলা ২টার দিকে সেলিমকে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এরপর বিকাল ৫টার দিকে জুয়েলের মৃত্যু হয়।
নিহত সেলিমের মা মনোয়ারা বেগম জানান, হার্টের সমস্যার চিকিৎসা করাতে আজই গ্রাম থেকে ছেলে সেলিমকে ঢাকা নিয়ে আসেন। পরে যাত্রাবাড়ী মোড়ে রাস্তা পারাপারের সময় দুই বাসের চাপায় তার ছেলে মৃত্যু হয়।
সেলিম মারা যাওয়ার তিন ঘণ্টা পর ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুয়েলেরও মৃত্যু হয়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ট্রান্সসিলভার বাস দুটি একটি অপরটিকে পেছনে ফেলার জন্য প্রতিযোগিতা করছিল। এসময় সেলিম ও জুয়েল চাপা পড়েন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জি/টি

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা