রুহুল কবির রিজভী

সরকারের গ্রিন সিগন্যাল ছাড়া লাখ লাখ টন কয়লা লুটপাট হতে পারে না, এর দায়ভার এড়াতে পারে না সরকার। বললেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ (শুক্রবার) নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, কয়েক বছর ধরে লুটপাট হয়ে গেল লাখ লাখ টন কয়লা। অথচ খনি কর্তৃপক্ষের টনক নড়েনি। কারণ, খনি কর্তৃপক্ষই শুঁড়ির সাক্ষী মাতাল। আবার বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির বিপুল পরিমাণ কয়লা লুটপাট হওয়া বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উদাসীন থাকাটা রহস্যজনক। খনি দুর্নীতির তদন্তে নাম আসা প্রকল্পের একজন কর্মকর্তাকে বিদেশ যেতে ৪২ দিনের ছুটি দেয়া হয়েছে। তাই এ কয়লা লুটপাটের মহাদুর্নীতির দায় সরকার বা সরকার প্রধান এড়িয়ে যেতে পারেন না।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, শেয়ার বাজার থেকে শুরু করে পদ্মা সেতু হয়ে ব্যাংক-বীমা-আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং প্রশ্নফাঁসের মাধ্যমে প্রাইমারি স্কুল থেকে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত পরীক্ষা ও সরকারি চাকরিতে নিয়োগ পরীক্ষায় মহা ধুমধামেই দুর্নীতি চলছে। যার পৃষ্ঠপোষকতায় এ সরকার।

তিনি আরও বলেন, দুদক তো সরকারের দুর্নীতি ধোয়ার মেশিন। আর বিরোধীদলের জন্য টর্চারিং মেশিন। দুদকের তদন্ত আইওয়াশ মাত্র। সরকারের দুর্নীতির সাফাই গাইতে দুদক কাজ করছে।

তথ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে রিজভী বলেন, তথ্যমন্ত্রী তথ্য দিয়েছেন যে, পিয়নের চাকরি নিতে গেলেও নাকি ১০ লাখ টাকা লাগে। এ ১০ লাখ টাকার ভাগ কে কে পায় সেটিও তথ্যমন্ত্রী জানালে ভালো হতো।

তিনি আরও বলেন, প্রতিদিনই বন্দুকযুদ্ধের নামে চলছে মানুষ হত্যার উৎসব। মাদক অভিযান শুরু থেকে এ পর্যন্ত বন্দুক যুদ্ধে প্রায় আড়াই শ’ ব্যক্তিকে বিচারবহির্ভূতভাবে হত্যা করা হয়েছে। 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / বিশেষ প্রতিবেদক

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা