ferighat

পদ্মায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত ও ফেরি স্বল্পতায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় কয়েক শ যানবাহন আটকে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে- বহরের ১৮টির মধ্যে চারটি রো-রো, তিনটি ইউটিলিটি ও দু’টি কে-টাইপ ফেরি বিকল রয়েছে। এর মধ্যে পুরনো তিনটি রো-রো ফেরির ইঞ্জিন দুর্বলতার কারণে স্রোতের বিপরিতে চলতে না পারায় নোঙ্গর করে রাখা হয়েছে। বিকল ফেরি জরুরি মেরামতের জন্য স্থানীয় ভাসমান কারখানা মধুমতিতে কাজ চলছে। নদীতে অব্যাহত পানি বৃদ্ধি ও স্রোতের কারণে এ রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় অগনিত যাত্রী ও যানবাহন শ্রমিকরা দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। রোববার যমুনার পানি আরিচা পয়েন্টে তিন সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৫৭ সে:মি: উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে, পাটুরিয়ায় দু’টি ও দৌলতদিয়ায় তিনটি ঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ায় জরুরি মেরামতের মাধ্যমে কোনো মতে ফেরিতে যানবাহন ওঠা-নামা করছে। বিআইডব্লিউটিসি’র কর্মকর্তারা জানান, তীব্র স্রোত ও ঢেউয়ের বিপরিতে ফেরি চলতে না পারায় উভয় ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় থাকা যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। স্রোতের তোড়ে ফেরি ডুবোচরে আটকে পড়ার আশংকা রয়েছে। ফলে ধীরগতিতে ও সতর্কতার সাথে ফেরি পরিচালনা করায় ট্রিপ সংখ্যা কমে যাচ্ছে। এতে পারাপারের অপেক্ষায় থাকা গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা