বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান

এ দেশের মানুষ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেছিল। স্বৈরাচার তৈরির জন্য নয়। আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ব্যবসা করে। তারা গণতন্ত্রকে গলা টিপে হত্যা করেছে। তারা মুক্তিযুদ্ধের প্রতিনিধি হতে পারে না।

বললেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান।

শনিবার বিকেলে নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা হাসান হাটায় খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশে অনাচার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষকে ভয় দেখিয়ে গণতন্ত্রের পথ থেকে বিরত রাখা হয়েছে। এখানে কথা বলার স্বাধীনতা নেই। সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নেই। রেডিও-টেলিভিশনের স্বাধীনতা নেই। এই অবস্থা চলতে দেয়া যায় না। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ প্রক্রিয়ায় এ অবস্থার পরিবর্তন করব। পুলিশের ভয় দেখিয়ে বাংলাদেশের মানুষকে দাবিয়ে রাখা যাবে না।

বিএনপি শান্তিপূর্ণ রাজনীতিতে বিশ্বাসী উল্লেখ করে মঈন খান বলেন, সরকার পেটোয়া বাহিনী দিয়ে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে ব্যাঘাত ঘটালে তার ফল শুভ হবে না।

যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনিরের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন পলাশ উপজেলা বিএনপির সভাপতি এরফান আলী, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, পলাশ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলম মোল্লা প্রমুখ।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / বিশেষ প্রতিবেদক

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা