milk

পুষ্টিবিদরা বলছেন, দুধকে কখনও ‘‌না’‌ বলবেন না। কারণ দুধে রয়েছে প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান।

নিয়মিত দুধ পান করলে আপনি যে উপকার পাবেন, তা নিম্মে তুলে ধরা হলো-

 

* দুধ একটি বিশুদ্ধ পানীয়। যদিও দুধ খেতে অনেকে পছন্দ করেন না। তবে পরীক্ষায় প্রমাণিত, দুধের মত পুষ্ঠিকর পানীয় আর নেই। শুধু শিশুদের নয়, প্রাপ্ত বয়স্কদেরও দুধ খাওয়া প্রয়োজন।  

* ‌হাড় গঠনের অন্যতম উপাদান ক্যালসিয়াম। সেই ক্যালসিয়ামে ভরপুর দুধ। যারা শিশু বয়সে দুধ খান বয়স কালেও তাদের হাড় ভাল থাকে। দুধে রয়েছে ভিটামিন ডি। ক্যালসিয়াম শুষে নিয়ে হাড়ের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

* আপনার দাঁতের ক্ষয় রোধ করতে পারে দুধ। কারণ এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম। শিশুদের দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল থাকে দুধ খেলে। কোলা জাতীয় খাবার খাওয়ার থেকে পানীয় হিসেবে দুধ খান। লালায় থাকা রোগ প্রতিরোধী জীবাণু ভাল থাকবে।

* দেহের ওজন কমাতেও দুধের জড়ি মেলা ভার। দেখা গেছে, এক গ্লাস দুধে রয়েছে পুরো খাবারের মতই পুষ্টি। তবে ক্যালরি অর্ধেক।

* শরীরে জলের মাত্রা ঠিক রাখে দুধ। অন্যান্য শক্তিবর্ধক পানীয়ের থেকে দুধ তাই আলাদা। দুধে যদি কারও অ্যালার্জি না থাকে তবে কোষ্টকাঠিন্য হলে দুধ খান। উপকার পাবেন।

* শরীরে ধকল গেছে বুঝলে দুধ খান। এতে রয়েছে ধকল কাটানোর উপযোগী ভিটামিন এবং মিনারেল। রাতে ঘুমতে যাওয়ার আগে এক গ্লাস গরম দুধ ধকল কাটানোর পক্ষে যথেষ্ট। নিয়মিত দুধ পান করলে আপনার দৈহিক গঠনে নানা ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

 



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / আ/ম

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা