obaidul-kader-visit-metro-rail-at-uttara-10262018-uttaranews24

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২৬ অক্টোবর, রোজ শুক্রবার উত্তরা সংলগ্ন তুরাগের দিয়াবাড়িতে মেট্রোরেল প্রকল্প’ পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক, সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, এমপি। পরিদর্শনে এসে তিনি প্রকল্প এলাকার বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখেন এবং মেট্রোরেল প্রকল্পের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে এক বৈঠকে মেট্রোরেল প্রকল্পের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন ওবায়দুল কাদের।

পরে সাংবাদিকদের দেয়া সাক্ষাৎকারে মেট্রোরেল প্রকল্প প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, মেট্রোরেল প্রধানমন্ত্রীর মেগা প্রকল্প । যা এখন সকলের সামনে দৃশ্যমান। ২০১৯ সালের দিকে ডিসেম্বরে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেলের প্রথম ফেজের কাজ শেষ হবে। আর দ্বিতীয় ফেজের কাজ আগারগাঁও থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত যা ২০২০ সালের ডিসেম্বরে শেষ হবে বলে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি আরও বলেন, এতে প্রতিদিন প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ যাতায়াত করতে পারবে।

এসময় জাতীয় ঐকফ্রন্টের সিলেট সমাবেশের সাত দফার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঐক্যফ্রন্টের সব দাবি অযৌক্তিক। সাত দফার এক দফাও মানা হবে না। নির্বাচনের সময় সরকার তার এজেন্ডাগুলো বাস্তবায়ন করবে। বিশ্বের অন্য দেশে যেভাবে থাকে আমাদের দেশেও একইভাবে সরকার থাকবে। সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এত বড় ঐক্যফ্রন্ট! কয়টা লোক হল? বড় বড় বাঘা বাঘা নেতারা সেখানে গেলেন বোমা ফাটাতে, জনগণের সাড়া কি মিলেছে? কোনোদিন মিলবে না। বাংলাদেশের ইতিহাস বলে, আন্দোলনে যারা বিজয়ী হতে পারে না, নির্বাচনেও তারা বিজয়ী হতে পারে না।

তিনি বলেন, নিরপে¶ সরকারের দরকার কী? নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন তো আছে। নির্বাচন যখন হবে, তখন নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে। এ নির্বাচন কমিশন পুরোপুরি নিরপেক্ষ।

নির্বাচন কমিশনে পরিবর্তন আনা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আর পরিবর্তনের সময় কই, মহামান্য রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি গঠন করে এই নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে। এখানে বিএনপির লোকও তো আছে’।

ইসিতে মতভেদের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, এটি কি জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ যে পাঁচজন সর্বসম্মত না দিলে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না? এখানে পাঁচজনের মেজরিটি যা বলে, তাই সিদ্ধান্ত। এটি বিভক্তি নয়।

সম্প্রতি বিএনপি নিষ্ক্রিয় ‘সংস্কারপন্থী’দের সক্রিয় করার যে উদ্যোগ নিয়েছে, তাতে তাদের দেউলিয়াত্বের প্রকাশ ঘটেছে বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। এ প্রসঙ্গ তিনি বলেন, বিএনপি কতটা দেউলিয়া যে এখন আবার তাদের নেয়া হয়েছে। দলের লোকজনকে সংস্কারপন্থী বলে কোণঠাসা করে রেখেছিল বিএনপি। এখন এই লোকেরা এসে আন্দোলনে শক্তি জোগাবে, বিশ্বাস করা কঠিন। তা ছাড়া ফখরুল সাহেব নিজেও সংস্কারবাদী ছিলেন।

কৃষক, শ্রমিক, জনতা লীগের আবদুল কাদের সিদ্দিকি সাত দফা সমর্থনের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, করুক, আরও বাড়ুক তারা। নেতায় নেতায় ঐক্য হোক, তাতে জনসমর্থন পাবে না।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক, সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর আগমনে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, এমপি, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ হাবিব হাসান সহ বৃহত্তর উত্তরার ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতৃবৃন্দরা।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / এস.এম.মনির হোসেন জীবন

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা