fashi

অপরাধের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের বিধান নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে মালয়েশিয়া, দেশটির পরবর্তী সংসদীয় অধিবেশনেই এ নিয়ে আলোচনা করা হবে বলে দেশটির গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার করে বুধবার (১০ অক্টোবর)। এর ফলে দেশটিতে ফাঁসি কার্যকরের অপেক্ষায় থাকা সাজাপ্রাপ্তদের দণ্ড স্থগিত রাখার সিদ্ধান্তও নেয়া হয়েছে। 

মালয়েশিয়ার কমিউনিকেশন ও মাল্টিমিডিয়া বিষয়ক মন্ত্রী গোবিন্দ সিং দেও বৃহস্পতিবার জানায়, ‘মন্ত্রিসভা মৃত্যুদণ্ড বাতিলে সম্মত হয়েছে। খুব শিগগিরই আইন সংশোধন করা হবে। কাগজপত্র সব চূড়ান্ত পর্যায় আছে।’ ‘এএফপি’তিনি আরও জানান, ‘অ্যাটর্নি জেনারেলও জানিয়েছে যে এখন বিলটি উত্থাপনের জন্য প্রস্তুত। মন্ত্রী বলেন, যেহেতু আমরা মৃত্যুদণ্ড বাতিল করতে যাচ্ছি। তাই অপেক্ষায় থাকা মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের সাজা দেওয় হবে না। আমরা পারডন বোর্ডকে তাদের কাছে জমা পরা আবেদন নিয়ে পর্যালোচনার করার জন্য জানাবো।’

মানবাধিকার সংস্থাগুলো মালয়েশিয়ার এই সিদ্ধান্তে সাধুবাদ জানিয়েছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জানায়, এটি একটি দারুণ অগ্রগতি হবে, তবে সরকারকে ‘সকল অপরাধের জন্য মৃত্যুদণ্ডের সাজা সম্পূর্ণরূপে বাতিল করা উচিত’। এক বিবৃতিতে বলা হয়, মালয়েশিয়ার মানবাধিকার রেকর্ডে মৃত্যুদণ্ড ‘জঘন্য কালিমা’ হয়ে আছে এমনকি মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দীদের প্রায়শই তাদের আপিল প্রক্রিয়া করার জন্য কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হয়। 

উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জি/তা

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা