salman_saha_un

চলচ্চিত্র জগতে নিজের অবস্থান করলেন, চলে গেলেন। এমনই ছিলো নায়ক সালমান শাহদর চলচ্চিত্র জীবন। মাত্র ৪ বছর। বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতে মাত্র ৪ বছর বিচরণ করেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত চলচ্চিত্রজীবনে ২৭টি ব্যবসাসফল ছবির নায়ক সালমান শাহ। এই জনপ্রিয় নায়কের ২০তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ, ৬ সেপ্টেম্বর। সালমান শাহদকে বলা হয় ৯০দর দশকের অন্যতম শ্রেষ্ঠ নায়ক। যার প্রকৃত নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। ১৯৯৬ সালের রহস্যজনক এক মৃত্যুতে পৃথিবী থেকে বিদায় নেন এ চিত্রনায়ক।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ ফ্ল্যাটে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় তার লাশ। সে সময় তার বাবা প্রয়াত কমরউদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করেন। ছেলের মৃত্যু অপমৃত্যু নয় বরং হত্যা করা হয়েছে- অভিযোগ করে তিনি ঢাকার সিএমএম আদালতে একটি অভিযোগ করেন। এরপর মামলা করেন।

জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সালমান শাহ’র মৃত্যুর ২০ বছর পেরিয়েও তিনি আত্মহত্যা করেছেন, নাকি তাকে হত্যা করা হয়েছে- এ নিয়ে এখনও রহস্য রয়ে গেছে। এদিকে, সালমান শাহ’র মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণে ঢাকা ও তার জন্মস্থান সিলেটে বিশেষ আয়োজন করেছে ভক্তরা।

১৯৯৩ সালে তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ মুক্তি পায়। এরপর থেকেই বাংলা চলচ্চিত্রে ভরসার প্রতিশব্দ হয়ে ওঠেন ক্ষণজন্মা এ নায়ক।

সালমান শাহ অভিনীত চলচ্চিত্রগুলো-
১৯৯৩
কেয়ামত থেকে কেয়ামত
১৯৯৪
তুমি আমার, অন্তরে অন্তরে, সুজন সখী, বিক্ষোভ, স্নেহ।
১৯৯৬
প্রেমযুদ্ধ, কন্যাদান, দেনমোহর, স্বপ্নের ঠিকানা, আঞ্জুমান, মহামিলন, আশা ভালোবাসা।
১৯৯৬
বিচার হবে, এই ঘর এই সংসার, প্রিয়জন, তোমাকে চাই, স্বপ্নের পৃথিবী, সত্যের মৃত্যু নেই, জীবন সংসার, মায়ের অধিকার, চাওয়া থেকে পাওয়া,
১৯৯৭
প্রেম পিয়াসী, স্বপ্নের নায়ক, শুধু তুমি, আনন্দ অশ্রু, বুকের ভেতর আগুন।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / সারোয়ার জাহান

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা