netrokona-modon-news

নেত্রকোণা জেলার মদন উপজেলায় ফতেপুর ইউনিয়নে গত ১০ই অক্টোবর ২০১৮ ইং তারিখ ফতেপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের মাহাবুবের মেয়ে মাসুদা আক্তার রনবী (১৬) রাতে তার ঘরের পেছনে টয়লেটে যাওয়ার সময় বাড়ীর পেছনে ওৎপেতে থাকা ফতেপুর দেওয়ান পাড়ার সবুজ মিয়ার ছেলে মনসুর আলম (১৭) মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। মেয়েটির আত্মচিৎকারে তার পরিবারের লোকজন ছুটে এসে উদ্ধার করে। এ সময় সু-চতুর মনসুর পালিয়ে যায়। পরদিন তার পিতা মাহাবুব বাদী হয়ে মদন থানায় শিশু ও নারী নির্যাতনের মামলা করলে এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ আসামী মনসুর আলম (১৭)কে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। গত সোমবার ওসি তদন্ত আজহারুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে এ প্রতিনিধিকে জানান শিশু ও নারী নির্যাতনের ঘটনায় ৫ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জাকির আহমেদ, মদন (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা