ইসকনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ ইসকনের নামধারী জিতেন্দ্রিয় দাসের প্রকাশিত নকল ভগবানের অবতার সিরিয়াল ১ বইটিতে সনাতন ধর্মীয় মহামানব শ্রীশ্রী হরিচাদ ঠাকুর, শ্রীরামকৃষ্ণ পরমহংসদেব, শ্রীলোকনাথ ব্রহ্মচারী, ঠাকুর শ্রী অনুকুল চন্দ্র সহ সাতজনের ছবি ব্যবহার করে ও বইয়ের অভ্যন্তরের এইসব হিন্দু সমাজরক্ষক অবতার, মহামানবের নামে যার পর নাই অপভাষা ও মিথ্যাচার চরম অপব্যাখ্যা প্রয়োগ করে সনাতন ধর্মের অভ্যন্তরে অসিষ্ণুতার চরম প্রকাশ ঘটিয়েছে।

আজ শুক্রবার রাজধানীর প্রেসক্লাবের সামনে নকল ভগবানের অবতার সিরিয়াল ১ নামক বিতর্কিত বইটি নিষিদ্ধকরণ ও এর বিতর্কিত লেখক ইসকনের জিতেন্দ্রিয় দাসের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবীতে শ্রীশ্রী হরি-গুরুচাদ মতুয়া মিশনের মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

আবহমানকাল থেকে এদেশে সনাতন হিন্দুবলয়ভূক্ত সম্প্রদায়সমূহ নানান ধর্মীয় মত-পথের অনুসারী হলেও ধর্মীয় জাতীয়তার প্রশ্নে তারা সবসময় ঐক্যবদ্ধ, জাতীয় পরিচয়ে তারা হিন্দু। পারস্পরিক বিশ্বাসের প্রতিও সর্বদা তারা শ্রদ্ধাশীল। ফলে জাতীয় জীবনে তাদের আন্তঃসহাবস্থান, সহমর্মিতা, সহযোগিতার যে প্রশস্ত পথ, তা সর্বদাই থেকেছে নিষ্কন্টক, অবারিত। এই পারস্পরিক সহাবস্থানকে বিঘ্নিত করতে এদেশীয় হিন্দু পরিচয়ধারী কিছু কুলাঙ্গার ধর্মব্যবসায়ী অপপ্রচার ও অসহিষ্ণুতার চরম প্রকাশ ঘটিয়ে প্রকাশ্যে মাঠে  নেমেছে। এদের কাজ হল কথায়, লিখনীতে, আচরণের মাধ্যমে হিন্দু সমাজের আন্তঃগোষ্টীসমূহের মধ্যে বিভাজন ও আত্মঃকোন্দল তৈরী করা। পশ্চিমা বিশ্বের সাম্রজ্যবাদীদের অর্থানুকুল্যে এই কুলাঙ্গারেরা নিজেদের অপ্রতিরোধ্য মনে করে দিনকে দিন সমাজ ভাঙ্গনে সীমাহীন অপপ্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।

জানা যায়, সাম্প্রতিক এই কুলাঙ্গার শ্রেণীর অন্যতমজন আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ ইসকনের নামধারী জিতেন্দ্রিয় দাস নামীয় ব্যক্তি যার আসল নাম জীতেন চন্দ্র রায়, গ্রাম-দোহাচী, পোস্ট-জয়ানন্দহাট, থানা-কাহারোল, জেলা-দিনাজপুর। “নকল ভগবানের অবতার সিরিয়াল-১” নামে একটি বিতর্কিত বই লিখে। যে বইটির প্রচ্ছদে শ্রীশ্রী হরিচাদ ঠাকুর, শ্রীরামকৃষ্ণ পরমহংসদেব, শ্রীলোকনাথ ব্রহ্মচারী, ঠাকুর শ্রী অনুকুল চন্দ্র সহ সাতজন অবতার মহামানবের ছবি ব্যবহার করে ও বইয়ের অভ্যন্তরের এইসব হিন্দু সময়াজরক্ষক অবতার, মহামানবের নামে যার পর নাই অপভাষা ও মিথ্যাচার চরম অপব্যাখ্যা প্রয়োগ করে। এর ফলে সারা বিশ্বব্যাপী কোটি কোটি সনাতন হিন্দুত্বে বিশ্বাসী ধর্মপ্রাণ মানুষ মানসিকভাবে চরম আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।

সমাজে সৃষ্টি হয় সীমাহীণ সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ সংঘাতের। এই পরিস্থিতিতে কোটি কোটি ধর্মপ্রাণ মানুষের হৃদয়ের রক্তক্ষরণ প্রশমিত করার আকাংখায় শ্রীশ্রী হরি-গুরুচাদ মতুয়া মিশন আজকের এই ‘নকল ভগবানের অবতার সিরিয়াল-১’ নামক বিতর্কিত বইটি নিষিদ্ধকরণ ও এর বিতর্কিত লেখক জিতেন্দ্রিয় দাসের সর্বোচ্চ শাস্তি, সেইসাথে এর প্রকাশকেও আইনের আওতায় এনে যথোচিত শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচীর আয়োজন করেছে।

শ্রীশ্রী হরি-গুরুচাদ মতুয়া মিশনের ঢাকাস্থ কেন্দ্রীয় মতুয়াদলের দলপতি মতুয়ারত্ন শ্রীসুশীল সাধুর সভাপতিত্ব অত্র মানব বন্ধন কর্মসূচীতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন শ্রীশ্রী হরি-গুরুচাদ মতুয়া মিশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি, শ্রীধাম ওরাকান্দির গদীসমাসীন ঠাকুর মহা-মতুয়াচার্য শ্রীপদ্মনাভ ঠাকুর।

এছাড়া বক্তব্য রেখেছেন মতুয়া মিশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মতুয়া-রত্ন ডঃ শ্রীগোকুল চন্দ্র বিশ্বাস, সহ-সভাপতি শ্রীসঞ্জয় কুমার কুমার দাস, সহ-সভাপতি শ্রীরঞ্জন রায়, সহ-সভাপতি শ্রীবিপুলপ্রিয় সিকদার, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার শ্রী শিশির কুমার বড়াল, সিনিয়র সাধারণ সম্পাদক শ্রী স্বপন কুমার বৈরাগী, মতুয়া মিশনের ঢাকা জেলা কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শ্রীহীরেন সুজন, সাধারণ সম্পাদক শ্রীস্বপন কুমার বৈরাগী, মতুয়া মিশনের ঢাকা জেলা কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শ্রী হীরেন সুজন, সাধারণ সম্পাদক শ্রী বিষ্ণুপদ ওঝা, মতুয়া মিশনের ঢাকা জেলা কমিটির সভাপতি শ্রীরনি হালদার, সাধারন সম্পাদক শ্রীরনজিত বাবু, মতুয়া মিশন নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি শ্রীনরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক শ্রীনিরঞ্জন অধিকারী, সিলেট মহানগর মতুয়া মিশন দলের দলপতি মতুয়ারত্ন শ্রীমৎ গোবিন্দ গোসাই প্রমূখ।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / বিশেষ প্রতিবেদক

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা