khaleda zia

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ডায়াবেটিসসহ বেশ কিছু রোগ অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় আছে। এছাড়া তিনি গেঁটেবাতজনিত সমস্যায় ভুগছেন। এসব রোগ নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে। এরপরই তার মূল চিকিৎসা শুরু হবে। আর তাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) তার চিকিৎসা কত দিন চলবে, তা এখনই নির্দিষ্ট করে বলতে পারছে না মেডিকেল বোর্ড।

 

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চারজন সদস্য সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা সম্পর্কে জানাতেই এই ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়।

রোববার দিবাগত রাতে বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক সৈয়দ আতিকুল হক বোর্ডের প্রতিনিধি হিসেবে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন।

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ আতিকুল হক সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়ার সমস্যাটা মূলত গেঁটেবাতজনিত।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেডিকেল বোর্ডের প্রধান অধ্যাপক আবদুল জলিল চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে বোর্ডের সদস্যরা হাইকোর্টের নির্দেশনা পড়েছেন। বোর্ড গঠনে হাইকোর্টের নির্দেশনার কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি বলেই তাদের ধারণা।

আজ রাতেও মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলেও জানানো হয়।

গত ৬ অক্টোবর আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। শনিবার বিকেল পৌনে চারটার দিকে বিএসএমএমইউতে নেওয়া হয় খালেদা জিয়াকে।
এর আগে বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী, খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য মোট পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / জি/তা

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা