piaz

দেশের বাজারে পেঁয়াজের দামে রেকর্ড ছাড়িয়েছে। চট্টগ্রামে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৬৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে খুচরা বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে ১২০ টাকা দরে। পেঁয়াজের এ দর কবে নাগাদ ক্রেতার ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আসবে, তা জানে না কেউ। তবে দায়িত্বপ্রাপ্ত বাণিজ্য সচিব জানিয়েছেন, নতুন পেঁয়াজ বাজারে উঠলেই দাম কমবে। দেশের পেঁয়াজের বাজার যখন অস্থির, তখনও অকার্যকর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বাধীন ১৪টি মনিটরিং কমিটি। বাজার মনিটরিংয়ে নামতে দেখা যায়নি তাদের। যদিও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, টিমগুলো কার্যকর রয়েছে।    

 

জানা গেছে, নিত্যপণ্যের মূল্য সহনীয় রাখা, অস্বাভাবিক মজুদ ঠেকানোসহ সরবরাহ ঠিক রাখার বিষয়টি তদারকির স্বার্থে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ১৪টি মনিটরিং টিম গঠন করে। বছরের শুরুতে জানুয়ারিতে একবার এবং জুনে আরেকবার টিমগুলো পুনর্গঠন করা হয়।  রুটিন মাফিক  টিমগুলোর বাজার পরিদর্শন করার কথা থাকলেও একমাত্র রোজার মাস ছাড়া প্রায় সারা বছরই অকার্যকর থাকে। নানা অজুহাতে এই টিমগুলো কাজ করে না।  

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সাধারণত ৬ মাসের জন্য গঠিত টিমগুলোর প্রধান করা হয় সরকারের উপ-সচিব পদ মর্যাদার ১৪ জন কর্মকর্তাকে। যাদের অধিকাংশই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও এর অধীন সংস্থায় কর্মরত থাকেন। প্রতিটি কমিটিতেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, ঢাকা জেলা প্রশাসন, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন, এফবিসিসিআই, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন ও ঢাকা মেট্রোপলিটান পুলিশের প্রতিনিধি অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে সারা বছরের জন্য গঠিত এই ১৪টি মনিটরিং টিম গঠিত হলেও টিমগুলো মূলত কাজ করে রোজার সময়। অন্য সময় বাজার অস্থিতিশীল না হলে খুব একটা বাজার মনিটরিং করা হয় না। এবার চাল ও পেঁয়াজ নিয়ে বাজার অস্থিতিশীল হলেও মনিটরিং টিমগুলোকে মাঠে দেখা যায়নি।

বর্তমানে যে ১৪টি মনিটরিং কমিটি রয়েছে, সেগুলো গঠিত হয়েছে ২০১৭ সালের ২০ জুন। ২০১৭ সালের ১ জুলাই থেকে পুনর্গঠিত টিমগুলো এখনও রয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আদেশে বলা হয়েছে, পরবর্তী টিম গঠিত না হওয়া পর্যন্ত বিদ্যমান টিমগুলোই কার্যকর থাকবে। 

বর্তমানে ১৪টি মনিটরিং কমিটিতে প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মিরাজুল ইসলাম উকিল। ইপিবির সহকারী পরিচালক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব রথিন্দ্র নাথ দত্ত। ইপিবি উপ-পরিচালক মো. জাকির হোসেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ড. এ কে এম আতিকুল হক। বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের গবেষণা কর্মকর্তা আবদুল লতিফ। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ডব্লিউটিও সেলের সহকারী পরিচালক মারুফুর রশিদ খান। বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের সিনিয়র সহকারী প্রধান ইউসুফ আলী মজুমদার, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব নাজমুল হক। বংলাদেশ ট্যারিফ কমিশনের উপ-প্রধান মশিউল আলম। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহকারী প্রধান মো. লুৎফর রহমান। টিসিবির সিও মো. আক্তার হোসেন। বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের উপ-সচিব আমির আবদুল্লাহ ও টিসিবির বজলুর রশিদ। টিমের প্রধানদের মধ্যে একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলতে চাইলে কেউই এ মুহূর্তে কথা বলতে রাজি হননি।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার বৈঠকে যোগ দিতে এই মুহূর্তে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বসুসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আর্জেটিনায় রয়েছেন। তাই মনিটরিং টিম সম্পর্কে তাদের সঙ্গে কথা বলা বলা সম্ভব হয়নি।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্তি সচিব শফিউল হক মুন্সী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের টিম কাজ করছে। প্রয়োজন হলে টিমগলো আবারও বাজার মনিটরিং করবে। তারা নিত্যপণ্যের সরবরাহ, মজুদ পরস্থিতি দেখছে। টিমগুলো কার্যকর রয়েছে।’ পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি জানান, ‘নতুন পেঁয়াজ উঠে এলেই দাম কমে যাবে।’

এদিকে, সোমবার (১১ ডিসেম্বর) বাজারে ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৮৫ থেকে ৯০ টাকা কেজি দরে। গত মাসে (নভেম্বরে) প্রতি কেজির দাম ছিল ৮০ থেকে ৯০ টাকা। অথচ গত বছরের এই সময়ে (ডিসেম্বর) প্রতি কেজি পেঁয়াজের মূল্য ছিল ৬০ থেকে ৬৫ টাকা।

রাজধানীর কাওরান বাজার ও শ্যামপুর কাঁচা বাজারের একাধিক ব্যবসায়ীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাজারে নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। তবে তার পরিমাণ খুব বেশি নয়। মাঠ থেকে ওঠা দেশি নতুন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ৯৫ টাকা কেজি দরে।  



উত্তরানিউজ২৪ডটকম / টি/কে

recommend to friends
  • gplus

পাঠকের মন্তব্য

ফেসবুকে আমরা