জাতীয়

primary-education-board

আগামীকাল থেকে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষা শুরু হবে । এবার পরীক্ষায় এমসিকিউ বা বহু নির্বাচনী প্রশ্ন বাদ দেওয়া হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে  এক সংবাদ সম্মেলনে এ খবর নিশ্চিত করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।

মন্ত্রী জানান, এ বছর ছয়টি বিষয়ে ১০০ করে মোট ৬০০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হবে। পরীক্ষায় ২৭ লাখ ৭৭ হাজার ২৭০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবে। এর মধ্যে ১২ লাখ ৭৮ হাজার জন ছাত্র এবং ১৪ লাখ ৯৮ হাজার ছাত্রী। গত বছরের চেয়ে এবার ২৩ হাজার ৪৭২ জন শিক্ষার্থী বেশি।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে প্রতিটি জেলার পরীক্ষা কার্যক্রম পরিদর্শনের জন্য ভিজিল্যান্স টিম গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, এ বছর ৭ হাজার ৪১০টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা হবে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত পরীক্ষা হবে। বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ৩০ মিনিট বেশি সময় পাবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, এ বছরের পরীক্ষার ফল নির্বাচনের আগেই প্রকাশ করা হতে পারে। আমরা মনে করি না, নির্বাচনের কারণে ফল প্রকাশ এবং বই বিতরণে কোনো সমস্যা হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা দেশের সর্ববৃহৎ পরীক্ষা, এ কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষার দায়িত্ব পালনে ন্যূনতম অবহেলা বা অনিয়মের বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ কক্ষের টেলিফোন নম্বর ০২-৯৫১৫৯৭৭, ই-মেইল mopmesch2@gmail.com এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের নম্বর ০২-৫৫০৭৪৯১৭, ০১৮৫৫-০৮০৩০৭, ০১৭১২-১০৬৩৬৯, ই-মেইল ddestabdpe@gmail.com। সমাপনী পরীক্ষা সংক্রান্ত সব তথ্য এ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানা যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা মহাপরিচালক ড. মো. আবু হেনা মোস্তাফা কামাল, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মঞ্জুর কাদির, অতিরিক্ত সচিব মো. গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।

পরীক্ষার সূচি:
১৮ নভেম্বর- ইংরেজি, ১৯ নভেম্বর- বাংলা, ২০ নভেম্বর- বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ২২ নভেম্বর- প্রাথমিক বিজ্ঞান, ২৫ নভেম্বর- গণিত এবং ২৬ নভেম্বর- ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা।

ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা:
১৮ নভেম্বর- ইংরেজি, ১৯ নভেম্বর- বাংলা, ২০ নভেম্বর- বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় ও বিজ্ঞান, ২২ নভেম্বর- আরবি, ২৫ নভেম্বর- গণিত, ২৬ নভেম্বর- কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ এবং আকাইদ ও ফিকহ।

বিস্তারিত

আন্তর্জাতিক

soudi-yuvraj

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে ইয়েমেনে সৃষ্ট মানবিক দুর্দশার জন্য সৌদি আরবকে দায়ী করে দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা ও অবরোধ আরোপে একটি উত্থাপিত হয়েছে। এছাড়া দেশটির কাছে অস্ত্র বিক্রিতেও নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা হয়েছে এই বিলে।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সিনেটর রবার্ট মেনেন্ডেজ, টড ইয়াং এবং ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ বন্ধু লিন্ডসে গ্রাহামের পক্ষ থেকে বিলটি উত্থাপিত হয়।

বিলটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একজন বলেন, সৌদি আরবের কাছে যুদ্ধোপকরণ, বোমা, ক্ষেপণাস্ত্র, বিমান, ট্যাংক বা সাঁজোয়াযান বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলা হয়েছে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্তকরণের মতো প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বিক্রির করা বলা হয়নি।

মেনেন্ডেজ এক বিবৃতিতে বলেন, এই বিল এটাই স্পষ্ট করেছে যে কংগ্রেস শত্রুতার তাৎক্ষণিক অবসান চায়। ইয়েমেনি নাগরিকদের সুরক্ষার বিষয়টিতে সব দলকে প্রাধান্য দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে এতে। একমাত্র রাজনৈতিকভাবে এই যুদ্ধের অবসান ঘটনা সম্ভব।

ইয়াং এক বিবৃতিতে বলেন, বিলটি আইনে পরিণত হলে ইয়েমেনে যুদ্ধরত সব দলকে সমঝোতায় এনে চলমান যুদ্ধ অবসানের ক্ষেত্রে এটি একটি বড় হাতিয়ার হবে ট্রাম্প প্রশাসনের। আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা স্বার্থ এবং মানবিক নীতি এটাই দাবি করে।

গ্রাহাম বলেন, আমাদের এই বিল একটি গুরুত্বপূর্ণ সংকেত। এর সঙ্গে ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের ঘোষণারও মিল আছে। এছাড়া ঘৃণ্য কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন ফ্রন্টের জন্য এটি একটি বড় ধরনের সংকেত।

সিনেট আর্মড সার্ভিসেস কমিটির সদস্য ও সিনেটর জ্যাক রিড এবং সিনেটর জিন শাহীনও এই বিলের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন।

উল্লেখ্য, গত মাসে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিহত হওয়ার পর দেশটির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস থেকে এই শাস্তিমূলক বিল উত্থাপিত হলো।

বিস্তারিত

উত্তরার খবর

euro-kids-art-compition

উত্তরা মডেল টাউন এর ৭নং সেক্টরের ২৮ নং রোডে অবস্থিত ইউরো কিডস্ প্রি স্কুল এর উদ্যোগে শিশুদের জন্য অংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। প্রতিযোগিতাটির নাম দেয়া হয়েছে ‘চিলড্রেন আর্ট কম্পিটিশন’। এ উপলক্ষ্যে ১৫ই নভেম্বর পর্যন্ত রেজিষ্ট্রেশন এবং ১৭ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে ১২:৩০ পর্যন্ত শুরু হবে এই অংকন প্রতিযোগিতা।

বয়স অনুযায়ী ৩ থেকে ৮ বছরের শিশুদের জন্য আর্ট প্রতিযোগিতায় মোট তিনটি ক্যাটাগরিতে প্রতিযোগিদের স্থান দেয়া হবে। ক্যাটাগরির গ্রুপ ‘এ’ তে অংশ নিতে পারবে ৩ থেকে ৪ বছর বয়সের শিশুরা, ক্যাটাগরির গ্রুপ ‘বি’ তে অংশ নিতে পারবে ৫ থেকে ৬ বছর বয়সের শিশুরা এবং ক্যাটাগরির গ্রুপ ‘সি’ তে অংশ নিতে পারবে ৭ থেকে ৮ বছর বয়সের শিশুরা।

ইউরো কিডস্ প্রি স্কুল এর প্রিন্সিপাল জনাবা ফারজানা ইয়াসমিনের সাথে কথা বলে জানা যায়, উক্ত আর্ট প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন আর্টস ফ্যাকাল্টির প্রফেসর ড. ফরিদা ইয়াসমিন।

আরও জানা যায়, ইউরো কিডস্ প্রি স্কুল আয়োজিত ‘চিলড্রেন আর্ট কম্পিটিশন’ এ অংশ নেয়া সকল প্রতিযোগিদের জন্য প্রতিযোগিতা শেষে সার্টিফিকেট প্রদান ও বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

প্রতিযোগিতায় ছোট সোনামণিদের অংশগ্রহণ করানোর জন্য উত্তরায় বসবাসরত সকল অভিভাবকদের ইউরো কিডস্ প্রি স্কুল এর নিচের ঠিকানায় যোগাযোগ করার অনুরোধ করা যাচ্ছে-
বাড়ী # ৩২, রোড # ২৮, সেক্টর # ০৭, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০।
এছাড়াও যেকোন তথ্যের জন্য যোগাযোগ: ০১৭৭৭৭৪৪২২২ । www.eurokidsdhaka.com

বিস্তারিত

বিনোদন

hasina-docu-drama

‘হাসিনা : এ ডটার’স টেল’। এই হাসিনা শুধুই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নন। তিনি কখনো বঙ্গবন্ধুর কন্যা, কখনো বা কারো বোন, কখনো একজন নেতা, কখনো বা পুরো দেশ তথা ১৬ কোটি মানুষের ‘আপা’। আর এসব পরিচয় ছাড়িয়ে প্রতিফলিত হয় একজন সফল ও সংগ্রামী মানুষের ব্যক্তিসত্তা। ৭০ মিনিটের অসামান্য এই ডকুড্রামা তথা তথ্যচিত্রটি মুক্তি পাওয়ার পরপরই সাড়া ফেলে দিয়েছে। বৃহস্পতিবার বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে ফিল্মটির প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শুক্রবার রাজধানী ঢাকার তিনটি ও চট্টগ্রামের একটি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে। ৭০ মিনিটের তথ্যচিত্রে উঠে এসেছে শেখ হাসিনার সাধারণ জীবনের অসাধারণ কিছু মুহূর্ত। প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও তাঁর পরিবারের সদস্যরা এসেছেন তথ্যচিত্রে।

সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) পাঁচ বছরে নির্মাণ করেছে ‘হাসিনা : এ ডটারস টেল’ ডকুফিল্ম। সিআরআইয়ের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শুক্রবার স্টার সিনেপ্লেক্সে সকাল ১১.৩০টা, দুপুর ১টা, বিকেল ৪.৫০টা, সন্ধ্যা ৬.৩০টা আর রাত ৮.১০টায় ফিল্মটি দেখানো হয়। আজ শনিবারও একই সময় সিনেমাটি দেখানো হবে। যমুনা ব্লকবাস্টারে রবিবার ক্লাব রয়ালে বিকেল ৩টায় কূটনীতিকদের জন্য একটি শো হবে। এখানে রাত ৮.০৫টায় দ্বিতীয় শো হবে সাধারণ দর্শকদের জন্য। এ ছাড়া অন্যান্য দিন বিকেল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭.১৫টায় ক্লাব রয়ালে দেখানো হবে এই শো। ঢাকার মধুমিতা সিনেমা হলে শুক্রবার মোট চারটি শো দেখানো হয়। অন্যান্য দিন এখানে সকাল ১১টা, বিকেল ৩টা ও সন্ধ্যা ৬.৪৫টায় তিনটি শো দেখানো হবে। চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে থিয়েটার প্লাটিনামে প্রতিদিন সকাল ১১টা আর থিয়েটার টাইটানিয়ামে মুভিটি প্রতিদিন রাত ৯টায় দেখা যাবে।

অসামান্য এই তথ্যচিত্রে শেখ হাসিনা কখনো মেয়ে, কখনো মা, কখনো বোন, আবার কখনো আমজনতার নেত্রী। ভাষা আন্দোলনের সংগ্রামী দিনগুলোতে ঢাকায় এসে পিতা শেখ মুজিবুর রহমানকে তিনি দেখেছেন সংগ্রামে আর জেলে। নতুন দেশ গঠনের পর আশপাশের মানুষদের ষড়যন্ত্রে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সপরিবারে শহীদ হন বঙ্গবন্ধু। দৈবক্রমে বেঁচে যাওয়া তাঁর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা মুখোমুখি হন এক কঠিন বাস্তবতার। পিতা-মাতা কেউ বেঁচে নেই, তবু দুই কন্যা এগিয়ে যাচ্ছেন; ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্য দিয়ে পিতার দেখানো পথে অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করছেন।

সব কিছু হারিয়ে এক সফল সংগ্রামের নায়ক, মানবিক ও স্বরূপে উঠে আসা শেখ হাসিনা তরুণ প্রজন্মকে প্রেরণা জোগাবেন এমন মন্তব্য দর্শকদের। দর্শকরা বলছে, একজন রাষ্ট্র পরিচালক পরিচয়ের পাশাপাশি ব্যক্তি জীবনের নানা অজানা তথ্যে পরিপূর্ণতা পেয়েছে ফিল্মের শেখ হাসিনা চরিত্রটি।

পরিচালক পিপলু খান ৭০ মিনিট দীর্ঘ এই ফিল্মটি নির্মাণ করতে সময় নিয়েছেন পাঁচ বছর। সংগীতায়োজন করেন দেবজ্যোতি মিস্ত্র, সিমোটোগ্রাফিতে ছিলেন সাদিক আহমেদ ও সম্পাদনা করেন নবনিতা সেন। সিনেমাটির প্রযোজক সিআরআই ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ও নসরুল হামিদ বিপু।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফিল্মটির প্রিমিয়ারে স্টার সিনেপ্লেক্সে সমবেত হয়েছিলেন রাজনীতি, অর্থনীতি, গণমাধ্যম ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের বিশিষ্টজনরা। পৌনে ৭টায় শীর্ষ দেশের গণ্যমান্য ও বিশিষ্টজনদের প্রথমে দেখানো হয় ফিল্মটি। এরপর রাত ৯টায় চলচ্চিত্র অঙ্গনের শিল্পী, গণমাধ্যমকর্মী ও সাধারণ দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। গতকাল শুক্রবার বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্স, যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার ও মতিঝিলের মধুমিতা ও চট্টগ্রামের সিলবার স্ক্রিনেও প্রদর্শিত হয়। প্রতিটি হলেই ছিল দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়।

ফিল্মটির শুরুতে আন্দোলন সংগ্রামের বাইরে পরিবারের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর সময় কাটানো ও জেলে থাকা পরিস্থিতির চিত্রায়ণ করা হয়েছে। ভাষা আন্দোলন চলার সময় তিন মাল্লার নৌকায় করে ঢাকায় আসে বঙ্গবন্ধুর পরিবার। স্বাধীনতা আনতে গিয়ে নানা সংগ্রামের মধ্যে পড়েন বঙ্গবন্ধু। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু পরিবারের সবাইকে হত্যা করা হয়। স্বামীর সঙ্গে বেলজিয়ামে গিয়েছিলেন শেখ হাসিনা, সঙ্গে ছিলেন ছোট বোন শেখ রেহানাও। বিদেশে থাকার সুবাদেই বেঁচে যান দুই বোন। পিতাকে হত্যার পরই তাঁদের জীবনে নেমে আসে কঠিন বাস্তবতা। বেলজিয়ামেও থাকার সুযোগ হয়নি। জার্মানিতে আশ্রয় হওয়ার কথা চললেও ভারতে আশ্রয় নেন দুই বোন। ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের হাল ধরেন শেখ হাসিনা। ঘাত-প্রতিঘাতে এগিয়ে চলা সেই শেখ হাসিনা এখন একজন সফল রাষ্ট্রপ্রধান।

ফিল্মটিতে ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীনের পর বিরোধীদের ষড়যন্ত্র, বঙ্গবন্ধুর দেশে ফিরে আসা ও পরিবারের সদস্যদের অপেক্ষা, ’৭৫ সালে পরিবারের সবাইকে হত্যা, বেলজিয়ামে দুই বোনের নিঃস্বতা, ভারতে আশ্রয় ও নাম পরিবর্তন করে ঘরে অবস্থান, ১৯৮১ সালে শেখ হাসিনার দেশে ফেরা, পিতা হত্যার বিচার চাওয়া, ’৯৬ সালের নির্বাচনে সরকার গঠন করে পিতৃ হত্যার বিচারে অডিন্যান্স বাতিল ও মামলা এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শেখ হাসিনার বেঁচে যাওয়ার অসাধারণ সব ঘটনা স্থান পেয়েছে ডকুড্রামায়। চলচ্চিত্রে দেখা যায়, পিতা-মাতা ও পরিবারের সদস্যদের হারালেও দুই বোনের একজন শেখ হাসিনা রাষ্ট্রের দায়িত্ব পালন করে দেশ ও জনগণের সেবা করছেন, আর সার্বক্ষণিক সঙ্গী হিসেবে থাকছেন ছোট বোন শেখ রেহানা। দুই বোনের বর্ণনায় উঠে এসেছে তাঁদের জীবনের বেদনাবিধুর কাহিনি। ধরা পড়েছে জন্মস্থানের প্রতি শেখ হাসিনার অসামান্য টানও। ফিল্মের এক স্থানে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘টুঙ্গিপাড়া আসলে আমার খুবই ভালো লাগে। মনে হয় আমি আমার মায়ের কাছে, মাটির কাছে ফিরে এসেছি। আমার তো মনে হয়, পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর জায়গা টুঙ্গিপাড়া।’

গতকাল সকাল ১১টায় বসুন্ধরা সিটিতে দিনের প্রথম শো অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে দর্শকরা হলে ঢোকে। এক ঘণ্টা ১০ মিনিট দীর্ঘ ফিল্ম। এর পরও দেখতে কোনো ক্লান্তি বা বিরক্তি ছিল না। পিনপতন নীরবতার মধ্য দিয়ে দর্শকরা উপভোগ করেছে। বাঙালির ইতিহাসের অনেক বড় বড় ঘটনার দৃশ্যায়ন থাকায় অধীর আগ্রহে দেখেছে দর্শকরা।

বৃহস্পতিবার ফিল্মটির প্রথম দর্শনের পর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবুল মুহিত বলেন, ‘অসাধারণ একটি মুভি। কেবল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই নয়, একজন মানুষের জীবনের নানা দিক তুলে ধরা হয়েছে। ১৯৮৪ সাল থেকেই দেখছি। জানার তো শেষ নেই। নতুন অনেক কিছুই জানলাম।’ তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, ‘প্রত্যেকের উচিত এটা দেখা, একজন মা কিভাবে ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্য দিয়ে এগিয়ে চলেছেন।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘এটি তরুণ প্রজন্মের কাছে সংগ্রামী জীবনের অনুপ্রেরণা হিসেবে থাকবে। এটার মাধ্যমে তাঁর সংগ্রামীজীবন, ব্যক্তিজীবনের নানা লড়াই উঠে এসেছে, যা আগামী প্রজন্মকে সাহস ও অনুপ্রেরণা জোগাবে।’ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, বাংলা চলচ্চিত্রের সাংস্কৃতিক পরিবর্তনের অন্যতম উদাহরণ এ চলচ্চিত্রটি। এতে শেখ হাসিনার ব্যক্তিসত্তার সঙ্গে যেমন পরিচিত হয়েছি, তেমনি দেখেছি তাঁর অনুপ্রেরণা হিসেবে শেখ রেহানাকে। এর গল্প অত্যন্ত প্রাঞ্জল, অত্যন্ত সাবলীল।

ত্বোয়াহা ফারুকী নামে এক দর্শক কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ডকো-ফিকশনধর্মী এই ফিল্মটিতে অনেকগুলো ঘটনার বর্ণনা রয়েছে। যেগুলো নিয়ে একেকটা মুভি হওয়ার উপাদান রয়েছে। পাশাপাশি ইতিহাসের অনেক বড় ঘটনার বর্ণনা রয়েছে, যেগুলো অনেকেরই অজানা। কাজেই দীর্ঘসময় হলেও কোনো বিরক্তি ছিল না। পিনপতন নীরবতার মধ্য দিয়ে সবাই উপভোগ করেছেন। শেখ হাসিনার জীবনে নানা প্রতিকূলতা ও ভাঙা-গড়ার উদাহরণ রয়েছে। শেখ হাসিনার জীবনী নিয়ে একটা বড় সিনেমাও হতে পারে।’

বিস্তারিত

খেলাধুলা

tamim-test

অনুশীলনে পাঁজরে চোট পাওয়া তামিম ইকবালের ফেরা হচ্ছে না ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে। ২২ নভেম্বর চট্টগ্রামে শুরু হতে যাওয়া টেস্টের দল ঘোষণা হতে পারে শনিবার। তবে তামিম ইকবালের না থাকাটা নিশ্চিত বলেই জানাচ্ছে সংশ্লিষ্ট সূত্র।

 

এশিয়া কাপে আঙুলের চোটে পড়েছিলেন তামিম ইকবাল, যা মাত্র এক ম্যাচেই এশিয়া কাপ শেষ করে দেয় তার। এরপর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজেও ছিলেন না।

তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে ফেরার জন্য পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু, এর মধ্যে ঘটে আরেক অঘটন।

মঙ্গলবার অনুশীলনের সময় পাঁজরে ব্যথা অনুভব করেন তামিম। তার আগের দিনই অবশ্য হালকা ব্যথা অনুভব করেছিলেন। সেটির তীব্রতা বাড়ার পর ফিজিওর পর্যবেক্ষণে ছিলেন। সবশেষ যে খবর তাতে অবশ্য তামিম ভক্তদের জন্য থাকছে শুধুই হাহাকার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তাতিম ইকবালকে পাওয়া যাবে— এমন আশায় ছিলেন সবাই। এমনকি খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও বৃহস্পতিবার তামিমকে পাওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু, সেটি আর হচ্ছে না। এমনকি মিরপুর টেস্টেও তার ফেরা নিয়ে থেকে যাচ্ছে শঙ্কা।

এদিকে, সাকিব আল হাসানের ফেরা বা না ফেরার বিষয়টি সাকিব, ফিজিও ও চিকিৎসকদের সিদ্ধান্তের উপরে ছেড়ে দিয়েছিলেন বিসিবি সভাপতি। তার বিষয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাননি। গুঞ্জন আছে, সাকিব আল হাসান ফিরতে পারেন ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টেই।

বিস্তারিত

বিচিত্র খবর

gas bandhu jasim- manikganj uttaranews24

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলায় ধানকোড়া ইউনিয়নে গোলড়া গ্রামের মো: জসিম উদ্দিন(৪০) এলাকাবাসীর কথা চিন্তা করে  হাতে নিয়েছেন একটি মহৎ কাজ।তিনি মানুষের বাড়ি বাড়ি গ্যাস দিয়ে আসছে সাইকেলে বা মাথায় করে। তার মূল পেশা কাপড় দোকান কিন্তু এলাকার মানুষের কথা চিন্তা করে তিনি কাপড়ের দোকানের পাশাপাশি মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গ্যাস দিয়ে আছে।গ্যাসের বোতলের দামের চেয়ে বেশি নেয় না।যদি কেও খুশি হয়ে ২০-৩০ টাকা দেয়ে তাহলে সে হাসি মুখে নেয়।

জসিম উদ্দিন উওরা নিউজকে জানান, আমার ছোট বেলা থেকে মানুষের সেবা করতে পারলে অনেক ভালো লাগে। আমি মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গ্যাস দিয়ে আসি তখন আমার কোন কষ্ট যে মানুষের একটু হলে উপকার করছি।আমাকে কেও কেও খুশি হয়ে গ্যাসের বোতলে দামের চেয়ে ২০-৩০ টাকা বেশি দেয়। আল্লাহর রাস্তায় চলতে পেরে ও মানুষের উপকার করতে পেরে আমি অনেক খুশি হই।আমি যেন মানুষের সারা জীবন উপকার করে মরতে পারি।

রুবেল হোসেন উওরা নিউজকে জানান, যে জসিম উদ্দিনের হোম সাভিসের জন্য আমাদের গ্রামে বা আশে পাশের এলাকার অনেক উপকার হয়েছে । আমরা যে কেও তাকে ফোন দেওয়ার সাথে সাথে গ্যাস নিয়ে হাজির হয় সাইকেল বা মাথায় করে। অনেক সময় গ্যাসের বোতলের দাম নিয়ে চলে যায়। আমরা দেখি সে প্রতিদিন পাঁচ ওযাক্ত নামাজ পরে কোন ওয়াক্ত নামাজ কাযা করে না। তার এই কাজের জন্য খুশি এলাকাবাসীও।

বিস্তারিত

ছবিঘর

medialinks MAMS image
image



© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
উত্তরা নিউজ ২০১৩-২০১৭